Home / সারাদেশ / কোলে সন্তান নিয়ে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ, অলৌকিকভাবে বেঁচে গেল শিশুটি

কোলে সন্তান নিয়ে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ, অলৌকিকভাবে বেঁচে গেল শিশুটি

রেল স্টেশনের একটু সামনেই দাঁড়িয়ে আনুমানিক ২৫ বছর বয়সী এক নারী। পরনে বোরকা তার। কোলে রয়েছে ফুটফুটে এক কন্যা সন্তান। অপেক্ষা করছিলেন একটি ট্রেনের। এমন সময় আসল ময়মনসিংহগামী বলাকা ট্রেন। যাত্রী নিয়ে স্টেশন ছাড়ে ট্রেনটি। তবে ওঠেনি ওই নারী। ট্রেন ছাড়তেই কোলে সন্তান নিয়ে ঝাঁপ দেন। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ওই নারীর। তবে অলৌকিকভাবে বেঁচে যায় কোলের শিশু।

বুধবার (১৩ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ৬টার দিকে গাজীপুরের শ্রীপুর পৌরসভা কাটাপুল এলাকায় ঢাকা থেকে ময়মনসিংহগামী বলাকা এক্সপ্রেস ট্রেনের নিচে নিজের মেয়েকে নিয়ে ঝাঁপ দেন ওই মা। এতে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান। আহত অবস্থায় মেয়েটিকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। ওই নারীর পরিচয় জানা যায়নি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকালে স্টেশনে বহু যাত্রী বিভিন্ন ট্রেনের জন্য অপেক্ষা করছিল। এ সময় স্টেশনে ময়মনসিংহগামী বলাকা ট্রেন এসে দাঁড়ায়। ট্রেন ছেড়ে একটু সামনে যেতেই বোরকা পরিহিত অজ্ঞাত (২৫) এক নারী একটি কন্যাশিশু কোলে নিয়ে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দেন।

শ্রীপুর রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার হারুণ অর রশিদ জানান, স্টেশন চত্বর থেকে এক কিলোমিটার উত্তরে সকাল সাড়ে ৬টার দিকে রেলওয়ে স্টেশন-সংলগ্ন কাটাপুল এলাকায় ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে শিশুসন্তান কোলে নিয়ে এক নারী কাটা পড়েন। এ ঘটনায় তার শিশুসন্তান আহত হয়েছে। শ্রীপুর পৌরসভার সংরক্ষিত নারী সদস্য (সংরক্ষিত ১, ২ ও ৩ এলাকা) নাজমা বেগম হাসপাতালে গিয়ে শিশুটির খোঁজ নেন। এ সময় তিনি জানান, শিশুটির কোনো স্বজন এখনও পাওয়া যায়নি। চিকিৎসা শেষে যদি কোনো স্বজন শিশুটিকে নিতে না আসে, তা হলে প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থার মাধ্যমে শিশুটির লালন-পালনের দায়িত্ব নিতে চাই।

About admin